শালা বাবুর কান্ড : ফয়সাল প্রিন্স

লিখেছেন : ফয়সাল প্রিন্স

আমার শ্বশুরের ১০ সন্তান। আমার স্ত্রী নবম। আমার কোন শালী নেই। আছে শুধু একজন শালা বাবু (স্ত্রীর ছোট ভাই)। শালা বাবু আজ দুপুরে অপরিচিত নাম্বার দিয়ে ফোন করে বলে - প্রথম আলোর হিসাব বিভাগ থেকে বলছি। আপনার ঈদের বোনাস কেটে রাখা হয়েছে। কেন? সে বলল চিঠি পেয়ে যাবেন। তবে শালা বাবু ভুল করে আমাকে প্রিন্স সাহেব বলেছে। প্রথম আলো কর্তৃপক্ষ আমাকে ফয়সাল নামে ডাকেন। আমার একটু সন্দেহ হলো। বোনাস বেতন পেয়েছি এক সপ্তাহ আগে। কাটার কথা বলে কি? আর প্রিন্স নামে ডাকার তো কথা নয়। মুঠোফোন নাম্বারটা ছোট ভাই সিজনকে দিয়ে প্রযুক্তির সহায়তা নিতে বললাম। কিছুক্ষণ পর সিজন বলে ভাই ‘তুহিন’ নাম আসে। আমার আর বুঝতে বাকি রইল না-এটা শালা বাবুরই কাজ। আমার শালা বাবু চমৎকার মানুষ। কথা কম বলে। কারো আগেপিছে নেই। তাঁর অসাধারণ ব্যক্তিত্ব আমাকে মুগ্ধ করে। আর তুহিনের বউ চুমকির কথা না বললেই নয়। ভালো মনের একজন মানুষ। ঢাকায় ওদের ক্যান্টনমেন্টে বাসায় গেলে চুমকি কত কিছু যে খাওয়ায়, তা বলে শেষ করা যাবে না। রুটি পিঠা, নারকেলের ঝোল থেকে শুরু করে নিজের হাতের তৈরি কেক। চুমকির হাতের তৈরি কেক এর স্বাদ একবার খেলে সারা জীবন মনে থাকবে। সে ইউটিউব ঘেঁটে এই ভ্যানিলা কেক তৈরির প্রণালী আবিস্কার করেছে। ভালো থাকুক প্রিয় মানুষ গুলো। 

0/Post a Comment/Comments

Previous Post Next Post